ভাবড়াশুর ইউনিয়নের উন্নয়নের রূপকার চেয়ারম্যান রিফাতুল আলম মুছা

মুকসুদপুর প্রতিনিধি:
গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার ৭ নং ভাবড়াশুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রিফাতুল আলম মুছা দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে বলে জানায় ইউনিয়নবাসী।
জানা যায় ২০১৬ সালে নৌকা প্রতীক নিয়ে ভাবড়াশুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন রিফাতুল আলম মুছা। তিনি দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে স্কুল, মাদ্রাসা, মুন্দির, ব্রীজ, রাস্তা, কালবার্ড নির্মাণসহ ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে বলে জানাযায়।
এ বিষয়ে ইউনিয়নের একাধিক মানুষের সাথে কথা হলে তারা জানায়, যুবক বয়সী একজন চেয়ারম্যান আমরা পেয়েছি, সাধারণ মানুষের পাশে সুখ দুঃখে সবসময় সে থাকে। রিফাতুল আলম মুছা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পরে ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়নের ছোয়া লেগেছে। আমাদের প্রতিটি কাঁচা রাস্তা পাকা হয়েছে। চেয়ারম্যান রিফাতুল আলম মুছাকে উন্নয়নের রুপকার বলতে পারেন। পুনরায় সে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে আমাদের ইউনিয়নে এর চেয়ে বেশি উন্নয়ন হবে। এ বিষয়ে ভাবড়াশুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রিফাতুল আলম মুছা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ধারন করে এবং আমাদের মাটিও মানুষের নেতা বার বার নির্বাচিত সাংসদ, গোপালগঞ্জ-১ আসনের এমপি মুহাম্মাদ ফারুক খানের নির্দেশে ইউনিয়নের প্রতিটি কাচা রাস্তা পাকা করা হয়েছে। স্কুল, মাদ্রসা, মন্দির, ব্রীজ, কালবার্ডসহ ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়ন করা হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে যদি পুনরায় নৌকা প্রতীক দেয় তাহলে ভাবড়াশুর ইউনিয়নে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *